Header Ads

রাহুলের তাণ্ডবেও জয় পায়নি পাঞ্জাব!

পাঞ্জাবের পক্ষে ওপেনার কেএল রাহুল ৭০ বলে ৯৫ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেছেন। অন্য ম্যাচে গেইলের সঙ্গে দারুণ জুঁটি গড়েছেন রাহুল। কিন্তু এ ম্যাচে গেইলের দায়িত্বটাও নিজের কাঁধে তুলে নিলেন রাহুল। দায়িত্ব নিলেন দলকে জেতানোরও। কিন্তু ১১ চার ও দুই ছয়ে খেলা ওই নায়কোচিত ইনিংস বিফলে গেছে।
মঙ্গলবার (৮ মে) রাজস্থান রয়্যালসের ১৫৯ রানের দেওয়া লক্ষ্যে ব্যাট করে ১৫ রানে হেরেছে পাঞ্জাব। এ ম্যাচে পাঞ্জাবের হয়ে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা গেইল ১ রান করেই ফিরে যান। কিন্তু তার সঙ্গী কেএল রাহুল দারুণ এক ইনিংস খেলেছেন। কিন্তু দলকে জেতাতে পারেননি। জিততে পারেননি ৪ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেওয়া এন্ড্রু টাই। দলের অন্য ব্যাটসম্যানরা জ্বলে উঠতে না পারায় বিফলে গেছে দুজনের ব্যক্তিগত দারুণ নৈপুন্য।
প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৫৮ রান তোলে রাজস্থান রয়্যালস। দলের পক্ষে ওপেনে নেমে ৫৮ বলে ৮২ রানের চোখ ধাঁধাঁনো এক ইনিংস খেলেছেন ইংলিশ উইকেটরক্ষক জস বাটলাম। কিন্তু দলের অন্য কেউ বড় ইনিংস খেলতে না পারায় ১৫৮ রানের বেশি করতে পারেনি তারা। রাজস্থানের পক্ষে বাটলারের পরে সর্বোচ্চ রান সানজু স্যামসনের ১৮ বলে ২২ ও বেন স্টোকসের ১১ বলে ১৪।
পাঞ্জাবের হয়ে দারুণ বল করেছন মুজিব-উর-রহমান। ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২১ রানে ২ উইকেট নেন এই আফগান তরুণ স্পিনার। এছাড়া দাদির মৃত্যুর দিনে ৪ উইকেট নেন এন্ড্রু টাই। তবে রাজস্থানকে ১৫৮ রানে বেঁধে ফেললেও সেই রান করতে পারেনি পাঞ্জাব। গেইলের ব্যাট না হাঁসাই তাদের দলের মুখেও হাঁসি ফুটল না।
পাঞ্জাবের হয়ে বাকি ১০ ব্যাটসম্যান মিলে করতে পেরেছেন মাত্র ৪১ রান। দলের পক্ষে রাহুলের পরে সর্বোচ্চ রান শেষের দিকে ব্যাট করা স্টইনিসের। তিনি ১১ রান করেন। দলের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থরা কাঁধে নিয়ে কেএল রাহুল ৯৫ রানে অপরাজিত থেকে মাথা নিচু, মুখটা কালো করে মাঠ ছেড়েছেন। নিজেদের ১০ ম্যাচে ৬ জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে তিনে আছে পাঞ্জাব।

No comments

Powered by Blogger.